মঙ্গলবার, ২৪ মে ২০২২, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯

প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে তথ্য গোপন করে ম্যানেজিং কমিটি গঠনের অভিযোগ

যশোর পুলেরহাট মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে নির্বাচনী তফসিলের তথ্য গোপন করে ম্যানেজিং কমিটি গঠনের অভিযোগ উঠেছে। এই কারণে অভিভাবকরা নির্বাচন বিষয়ে জানতে গেলে তফসিল ঘোষণা হয়নি বলে অভিভাবকদের ফিরিয়ে দেন। এ বিষয়ে জেলা প্রশাসকের কাছে লিখিত অভিযোগ করা হয়েছে।

উপজেলা শিক্ষা অফিস সূত্র জানিয়েছে, কোনো মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির নির্বাচন হওয়ার আগে উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসারের উপস্থিতিতে তফসিল ঘোষণা করা হয়। সেই তফসিল যেসব পত্রিকা মানুষ পড়ে তাতে বিজ্ঞাপন দিতে হয়। বিজ্ঞাপন দেখে অভিভাবকরা মনোনয়ন পত্র ক্রয় করেন। অথচ পুলের হাট মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের নির্বাচনী তফসিল ৮ মে ঘোষণা করে। সেটা যশোরের নামসর্বস্ব একটি বিজ্ঞাপন দিয়ে প্রকাশ করে, যাতে কেউ জানতে না পারে। হারুন অর রশিদ নামে অভিভাবকের জেলা প্রশাসকের কাছে দেয়া অভিযোগ পত্রের মাধ্যমে জানা গেছে, নির্বাচনী তফসিলের বিষয়ে অভিভাবক প্রধান শিক্ষকের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, নির্বাচনী তফসিল হয়নি, হলে জানতে পারবেন। অথচ মনোনয়ন পত্র সংগ্রহের শেষ ও জমা দেয়ার শেষ সময় ছিল ১১ মে বুধবার। বৃহস্পতিবার মনোনয়ন পত্র যাচাই-বাছাই হয়েছে। একারণে অনেকেই ইচ্ছা থাকলেও বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির নির্বাচনে অংশ গ্রহণ করতে পারেননি। তাই পুনরায় তফসিল ঘোষণার দাবি জানিয়েছেন। প্রধান শিক্ষক কাওসার আলী জানান, তার বিরুদ্ধে করা অভিযোগ সত্য নয়। তিনি তফসিল পত্রিকায় প্রকাশ করাসহ অফিসের নোটিশ বোর্ডে টাঙিয়েছেন। এ ব্যাপারে উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার এম কামরুজ্জামান জাহাঙ্গীর জানান , জেলা প্রশাসকের কাছে দেয়া অভিযোগের কপি সাবেক চেয়ারম্যান শাহারুল ইসলাম আমাকে দিয়েছেন। জেলা প্রশাসকের কাছে লিখিত অভিযোগ দেয়ার প্রেক্ষিতে তদন্ত হয়ে অনিয়ম ধরা পড়ে। সেখান থেকে যে নির্দেশ আসবে, সে অনুযায়ী আমি কাজ করব। তবে আমি নিয়মতান্ত্রিক ভাবে মনোনয়ন পত্র যাচাই-বাছাই করেছি।