বুধবার, ১০ আগস্ট ২০২২, ২৬ শ্রাবণ ১৪২৯

বহিষ্কৃত আওয়ামী লীগ নেতার ভয়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছে এক পরিবার

লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার ভবানীগঞ্জ ইউনিয়নে বহিষ্কৃত আওয়ামী লীগ নেতা মোক্তার হোসেন বিপ্লবের বিরুদ্ধে এক ব্যবসায়ী পরিবারকে হত্যাসহ বিভিন্ন হুমকি দেয়ার অভিযোগ উঠেছে। এ আতঙ্কে ব্যবসায়ী পরিবার পালিয়ে বেড়াচ্ছে।

গতকাল সোমবার  লক্ষ্মীপুর পৌর শহরের একটি চাইনিজ রেষ্টুরেন্টে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে ভূক্তভোগী পরিবার এ অভিযোগ করে। সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন স্থানীয় ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী মনির আহম্মেদ ভূঁইয়া। অভিযুক্ত মোক্তার হোসেন বিপ্লব লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার ভবানীগঞ্জ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাবেক সহ-সভাপতি ও চোরাস্তা মার্চেন্ট কমিটির সভাপতি। তিনি ইউপি নির্বাচনে বিদ্রোহী প্রার্থী হওয়ায় দল থেকে বহিষ্কৃত হন।

সংবাদ সম্মেলনে অভিযোগ করে ভুক্তভোগী পরিবারটি জানায়, মোক্তার হোসেন বিপ্লবের সঙ্গে জমি নিয়ে  বিরোধের জেরে গত ২৫ জুলাই লক্ষ্মীপুর সিনিয়র সহকারী জজ আদালতের নির্দেশে মনির আহম্মেদ ভূঁইয়াকে ১৪ শতাংশ জমির  দখল বুঝিয়ে দেওয়া হয়েছে। উচ্ছেদ ও অগ্রক্রয়ের মামলার রায় পাওয়ায় আদালতের নির্দেশে ওই জমির ১২ শতাংশে থাকা সীমানা প্রাচীর ও ২ শতাংশে থাকা দুইটি দোকানঘরসহ সকল স্থাপনা তুলে ফেলা হয়। কিন্তু আদালতের রায় ও উচ্ছেদ অমান্য করে গত ২৭ জুলাই রাতে ওই সম্পত্তি পূনরায় জবরদখল করে নেয় তারা। এর পর থেকে প্রাণনাশসহ বিভিন্ন হুমকি প্রদান করে বিপ্লব ও তার লোকজন। বর্তমানে গত একসপ্তাহ যাবত প্রাণের ভয়ে মনির আহম্মেদ ও তার পরিবার এলাকাছাড়া বলে অভিযোগ কার হয়। এসময় তিনি  পুলিশ সুপার ও জেলা প্রশাসকের হস্তক্ষেপ কামনা করেন। এতে উপস্থিত ছিলেন- মনিরের স্ত্রী মনি আক্তার, মা নুরজাহান বেগম ও শিশু সন্তান মুনতাসির।

এ ব্যাপারে সাবেক আওয়ামী লীগ নেতা মোক্তার হোসেন বিপ্লব বলেন, আদালত কোন নোটিস না করে আমার সীমানা প্রাচীর ভেঙে দিয়েছে। এসময় হুমকির বিষয়টি অস্বীকার করেন। এছাড়া নির্বাচনের পর থেকে দলীয় আর কোন পদে নেই বলে জানান তিনি।