মঙ্গলবার, ২৪ মে ২০২২, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯

মাথাপিছু আয়ে ভারতের ওপরে থাকবে বাংলাদেশ : আইএমএফ

বিগত কয়েক অর্থবছর মাথাপিছু আয়ে ভারতের ওপরে ছিল বাংলাদেশ। তবে ২০২১-২২ অর্থবছরে এক্ষেত্রে এদেশকে টপকে যাবে প্রতিবেশি দেশ। কিন্তু এরপর আবার ভারতকে ছাড়িয়ে যাবে বাংলাদেশ। আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিলের (আইএমএফ) পূর্বাভাসে এ তথ্য পাওয়া গেছে।

ব্যবসাভিত্তিক প্রভাবশালী ভারতীয় সংবাদমাধ্যম বিজনেস স্ট্যান্ডার্ডের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, ২০২২-২৩ অর্থবছরেই ফের মাথাপিছু আয়ে ভারতকে টপকে যাবে বাংলাদেশ। আর এ অবস্থানটা থাকবে একটানা কয়েক বছর।

চলতি অর্থবছরেও মাথাপিছু আয়ে ভারতের চেয়ে সামান্য পিছিয়ে থাকবে বাংলাদেশ। মাত্র ৩৮ ডলার ছাড়িয়ে থাকবে বিশ্বের অন্যতম বৃহৎ অর্থনীতি। ২০২০-২১ অর্থবছরে বাংলাদেশি নাগরিকের মাথাপিছু আয় ছিল গড়ে ১৯৬২ ডলার। বিপরীতে ভারতীয় নাগরিকের মাথাপিছু আয় ছিল ১৯৩৫ ডলার।

আইএমএফের পূর্বাভাসে জানানো হয়, ২০২৭-২৮ অর্থবছরে ভারতের চেয়ে বাংলাদেশের মাথাপিছু আয় ২০০ ডলার বেশি থাকবে। ডলারের বর্তমান মূল্যে প্রতি নাগরিকের সামষ্টিক অভ্যন্তরীণ উৎপাদনের ( জিডিপি) ভিত্তিতে এ পরিসংখ্যান তৈরি করা হয়েছে।

বিশ্বের অন্যতম পোশাক রপ্তানিকারক বাংলাদেশ। এদেশে সুলভ মূল্যে শ্রমিক পাওয়ায় এ খাত ব্যাপক লাভজনক হয়ে উঠেছে। দেশের জিডিপির ২০ শতাংশই আসে এ পোশাক শিল্প থেকে।

দক্ষিণ এশিয়ায় দ্বিতীয় বৃহত্তম অর্থনীতি বাংলাদেশ। ভারতের পরই এদেশের স্থান। গত ৬ বছর ধারাবাহিকভাবে ৬ শতাংশ জিডিপি প্রবৃদ্ধি ধরে রেখেছে বাংলাদেশ। এমনকি করোনা মহামারিতেও এদেশে জিডিপি প্রবৃদ্ধি অব্যাহত থেকেছে। যেখানে ভারতসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশ ধুঁকেছে।