রোববার, ২৬ জুন ২০২২, ১২ আষাঢ় ১৪২৯

প্রধান শিক্ষককের থাপ্পড়ে ছাত্রী হাসপাতালে

নাটোরের লালপুর উপজেলার নর্থ বেঙ্গল সুগার মিলস হাই স্কুলের প্রধান শিক্ষক গাউছুল আজমের থাপ্পড়ে ইসরাত জাহান নিলা নামের দশম শ্রেণির এক শিক্ষার্থী আহত হয়েছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। কান থেকে রক্তক্ষরণ হওয়ায় ওই শিক্ষার্থী লালপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। বুধবার উপজেলার গোপালপুর নর্থ বেঙ্গল সুগার মিলস্ হাইস্কুলে এই ঘটনা ঘটে।

ইশরাত জাহান নিলা উপজেলার গোপালপুর পৌরসভার শিবপুর মহল্লার আশরাফুজ্জামানের মেয়ে ও ওই বিদ্যালয়ের ১০ম শ্রেণির বিজ্ঞান বিভাগের ছাত্রী।

আহত ওই শিক্ষার্থী জানান, প্রতিদিনের মতো সকালে স্কুলে যাই, ক্লাস শুরুর দেরি থাকায় আরেক বান্ধবীকে নিয়ে বিদ্যালয়ের দোতালায় গিয়ে ল্যাব রুমের সামনে দাড়িয়েছিলাম। এমন সময় প্রধান শিক্ষক ডেকে পাঠান। স্যারের সামনে গেলে কিছু বুঝে উঠার আগেই আমার দুই গালে ক্রমাগত থাপ্পড় মারতে থাকেন। এতে আমার কান দিয়ে রক্ত বের হতে থাকে। পরে আমাকে বসিয়ে রেখে আমার বাবা-মাকে ডেকে আনেন। পরে বাবা মা আমাকে নিয়ে হাসপাতালে নিয়ে আসে।

ওই শিক্ষার্থীর মা ইসমেয়ারা বেগম জানান, আমার মেয়েকে অন্যায় ভাবে মারা হয়েছে, এ বিষয়ে প্রতিষ্ঠানের প্রধান শিক্ষক গাউছুল আজমের বিরুদ্ধে মিলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক বরাবর আবেদন লিখলেও ওই প্রধান শিক্ষক আবেদনটি জমা দিতে দেননি। তিনি ওই প্রধান শিক্ষকের শাস্তির দাবি জানান।

এ বিষয়ে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রধান শিক্ষক গাউছুল আজমের মুঠোফোনে দৈনিক আমাদের বার্তার পক্ষ থেকে একাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও তিনি ফোন রিসিভ করেননি। তাই তার বক্তব্য নেয়া সম্ভব হয়নি।

এ বিষয়ে মিলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আনিসুল আজম দৈনিক আমাদের বার্তাকে বলেন, অভিযোগ পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।