রোববার, ২৬ জুন ২০২২, ১২ আষাঢ় ১৪২৯

এমপিও জটিলতায় পরা প্রার্থীদের তথ্য পাঠানোর সুযোগ রোববার পর্যন্ত

শিক্ষক নিয়োগের তৃতীয় গণবিজ্ঞপ্তি অনুসারে শিক্ষক পদে নিয়োগ সুপারিশ পেলেও যোগদান করতে না পারা ও যোগদান করার পরেও ভুল পদে সুপারিশসহ বিভিন্ন জটিলতায় এমপিওভুক্তি হতে না পারা প্রার্থীদের তথ্য চেয়েছিলো বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধন ও প্রত্যয়ন কর্তৃপক্ষ (এনটিআরসিএ)। আগামী রোববার (২৬ জুন) বিকেল পাঁচটার মধ্যে এমপিও জটিলতায় পড়া ও যোগদান করতে না পারা প্রার্থীরা তথ্য-প্রমাণসহ আবেদন এনটিআরসিএ কার্যালয়ে পাঠাতে পারবেন।

তবে, যারা ননএমপিও পদে আবেদন করে ননএমপিও পদে সুপারিশ প্রাপ্ত হয়েছেন তাদের এ আবেদন করার দরকার নেই বলে জানিয়েছে এনটিআরসিএ। সরাসরি এনটিআরসিএ কার্যালয়ের তথ্যসহ আবেদন জমা দিতে হবে প্রার্থীদের। গত ১৮ মে থেকে এসব তথ্য সংগ্রহ শুরু করে এনটিআরসিএ।

এনটিআরসিএ জানিয়েছে, তৃতীয় নিয়োগ বিজ্ঞপ্তির আওতায় যারা এমপিও পদে সুপারিশপ্রাপ্ত হয়ে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে যোগদান করেছেন কিন্তু পদ সংক্রান্ত জটিলতা, সরকারিকরণ, ভুল চাহিদা ইত্যাদি কারণে এমপিওভুক্ত হতে পারেননি বা সুপারিশপ্রাপ্ত হয়ে কোনো শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে যোগদান করতে পারেননি, তাদেরকে আগামী ২৬ জুন বিকেল পাঁচটার প্রয়োজনীয় তথ্য-প্রমাণসহ এনটিআরসিএ কার্যালয়ে সরাসরি আবেদন পত্র পৌঁছানোর জন্য অনুরোধ করা হলো। আবেদনপত্রের সঙ্গে এনটিআরসিএর ইস্যুকৃত নিয়োগ সুপারিশপত্র, যে আবেদনের ভিত্তিতে নিয়োগ সুপারিশ পেয়েছেন সে আবেদনপত্র বা এপ্লিকেন্টস্ কপি এবং এনটিআরসিএর নিবন্ধন সনদের কপি দাখিল করতে হবে। যারা এসব বিষয়ে ইতঃপূর্বে এনটিআরসিএতে আবেদন করেছেন, তাদেরকেও তথ্য-প্রমাণসহ পুনরায় আবেদন করতে বলা হয়েছে।

জানা গেছে, প্রার্থীদের নাম, মোবাইল নম্বর, রোল ও ব্যাচ, পদ ও বিষয়, সুপারিশপ্রাপ্ত প্রতিষ্ঠানের নাম ও ইআইআইএন নম্বর এবং এমপিও না হওয়ার কারণ নির্ধারিত ছকে উল্লেখ করে আবেদন লিখতে হবে। আবেদনের সঙ্গে আবেদনপত্রের সঙ্গে এনটিআরসিএর ইস্যু করা নিয়োগ সুপারিশপত্র, যে আবেদনের ভিত্তিতে নিয়োগ সুপারিশ পেয়েছেন সে আবেদনপত্র বা এপ্লিকেন্টস্ কপি এবং এনটিআরসিএর নিবন্ধন সনদের কপি যুক্ত করে আগামী রোববারের (২৬ জুন) মধ্যে এনটিআরসিএ কার্যালয়ে জমা দিতে হবে।

এনটিআরসিএ আরও বলছে, যারা ননএমপিও পদে আবেদন করে ননএমপিও পদে সুপারিশ পেয়েছেন তাদের আবেদন করা বা তথ্য পাঠানোর দরকার নেই। ২৬ জুনের পর এ সংক্রান্ত কোনো আবেদন নেয়া হবে বলেও জানিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি।