মঙ্গলবার, ২৪ মে ২০২২, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯

বিদেশে রেকর্ড ‘পাপ পুণ্য’র

আগেই জানা গেছে, বাংলাদেশের কোনো সিনেমা হিসেবে প্রথমবারের মতো দেশের বাইরের শতাধিক হলে একযোগে মুক্তি পাবার ইতিহাস গড়তে যাচ্ছে ইমপ্রেস টেলিফিল্ম প্রযোজিত গিয়াসউদ্দিন সেলিম পরিচালিত সিনেমা ‘পাপ পুণ্য’। এবার প্রকাশ পেল সিনেমাটির থিয়েটার লিস্ট। সেখান থেকে দেখা যাচ্ছে, উত্তর আমেরিকার ১১২টি হলে একই দিনে মুক্তি পেতে যাচ্ছে তারকাবহুল এই সিনেমা। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন আন্তর্জাতিক পরিবেশক স্বপ্ন স্কেয়ারক্রো এর প্রেসিডেন্ট মো. অলিউল্লাহ সজীব ও। তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশের সিনেমার ইতিহাসে এটি যে একটি যুগান্তকারী ঘটনা সেটি না বললেও চলছে। আজকে আন্তর্জাতিক বক্স অফিসে ভারতীয় সিনেমার এই যে দাপট, তার শুরুটা হয়েছিল কিন্তু অধিক সংখ্যক থিয়েটারে অধিক মানুষের কাছে তাদের সিনেমা নিয়ে যাওয়ার মধ্য দিয়ে।’

সজীব আরও বলেন, ‘'পাপ পুণ্য ' মুক্তি পাচ্ছে একযোগে কানাডার ৫টি প্রভিন্সের ৮টি শহর এবং আমেরিকার ২৫টি স্টেট এর ১০০ এর বেশি শহরে। এতে করে সিনেমাটি ২০ মে থেকে আমেরিকা ও কানাডার মোটামুটি ১ মিলিয়ন এর বেশি (বাংলাদেশের সিনেমার) দর্শকের দেখার সুযোগ হচ্ছে। এটিই বাংলাদেশের সিনেমার উত্তর আমেরিকা অঞ্চলের (অলমোস্ট) টোটাল মার্কেট সাইজ। এখন, এ সংখ্যার কতজন আমাদের সিনেমা দেখতে 'পাপ পুণ্য' থেকেই থিয়েটারে যাওয়া শুরু করবেন তার উপর নির্ভর করছে কত দ্রুত আমরা পৃথিবীর অন্যতম বৃহত্তম একটি সিনেমা ইন্ডাস্ট্রি হওয়ার পথে এগিয়ে যাব। একটি হিসেবে দেখা গেছে, এই ১ মিলিয়ন লোকের ১০ ভাগের ১ ভাগ মানে মাত্র ১ লাখ দর্শক যদি নিয়মিত আমাদের সিনেমা দেখেন তাহলে শুধু কানাডা আর আমেরিকা থেকে আমাদের একেকটি সিনেমার গ্রস বক্স অফিস কালেকশন হবে ১ মিলিয়ন ডলারের উপর। সুপারহিট, ব্লকবাস্টার হিট হলে তো সংখ্যাটা ২ মিলিয়ন ডলারে গিয়েও ঠেকতে পারে।’

আমেরিকার বিশ্ববিখ্যাত এএমসি, রিগ্যাল, সিনেমার্ক, হারকিন্স, শোকেইস চেইনে ২৫টি স্টেট এর ১০৪ টি মাল্টিপ্লেক্সে মুক্তি পাচ্ছে ‘পাপ পুণ্য’। স্টেটগুলো হল নিউইয়র্ক, নিউ জার্সি, পেনসিলভানিয়া, মেরিল্যান্ড, ভার্জিনিয়া, মিশিগান, কানেক্টিকাট, ম্যাসাচুসেটস, টেক্সাস, ক্যালিফোর্নিয়া, ফ্লোরিডা, জর্জিয়া, অ্যারিজোনা, নেভাডা, ইউটাহ, ওহাইও, ইলিনয়, ইন্ডিয়ানা, ক্যানসাস, কলোরাডো, ওকলাহোমা, টেনেসি, লুইজিয়ানা, অরিগন এবং ওয়াশিংটন।

কানাডায় সিনেপ্লেক্স এন্টারটেইনমেন্ট এর চেইনে ৫টি প্রভিন্স অন্টারিও, ম্যানিটোবা, অ্যালবার্টা, ব্রিটিশ কলাম্বিয়া, নোভাস্কোশিয়া এর ৮টি শহরের ৮টি প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পাচ্ছে ‘পাপ পুণ্য’।

‘মনপুরা’ এর বিশাল সাফল্যের পর গিয়াসউদ্দিন সেলিম ও চঞ্চল চৌধুরী জুটির সিনেমা নিয়ে দর্শকদের বিশাল আগ্রহ রয়েছে। সেই সাথে এ সিনেমায় আছেন সুঅভিনেত্রী আফসানা মিমি, এই সময়ের ক্রেজ সিয়াম আহমেদ, নবাগত সুমিসহ একঝাক তারকা।

স্বপ্ন স্কেয়ারক্রো বাংলাদেশ এর প্রধান নির্বাহী সৈকত সালাহউদ্দিন জানিয়েছেন তাদের অফিসিয়াল পেজগুলোতে থাকছে উত্তর আমেরিকায় ‘পাপ পুণ্য’ সিনেমার ১১২ হলের তালিকা। ১৮ মে থেকে থিয়েটারগুলির ওয়েবসাইট পাওয়া যাবে শো-টাইম ও অগ্রিম টিকেট।

‘পাপ পুণ্য’ চলচ্চিত্রের ক্রিয়েটিভ প্রডিওসার এবং ইমপ্রেস টেলিফিল্ম এর ফিল্ম কনসালটেন্ট আবু শাহেদ ইমন জানিয়েছেন আগামী সপ্তাহে দেশের প্রেক্ষাগৃহের তালিকা প্রকাশ করা হবে।